পৃথিবী ও মঙ্গল গ্রহের বৈশিষ্ট্যের তুলনামূলক বিশ্লেষণ – প্রতিবেদন

প্রিয় নবম শ্রেণীর শিক্ষার্থীরা, তোমরা ইতোমধ্যেই ৭ম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট হাতে পেয়েছো। আজ নবম শ্রেণীর ৭ম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্ট ২০২১ এর ভূগোল ও পরিবেশ এর নির্ধারিত কাজ এবং নমুনা উত্তর নিয়ে হাজির হয়েছি। সর্বপ্রথমে চলো দেখে নেয়া যাক ভূগোল ও পরিবেশ ৭ম সপ্তাহের অ্যাসাইনমেন্টএ কি কি থাকছে।

পৃথিবী ও মঙ্গল গ্রহের বৈশিষ্ট্যের তুলনামূলক বিশ্লেষণ – প্রতিবেদন

তোমাদের ভূগোল ও পরিবেশ পাঠ্য বইয়ের দ্বিতীয় অধ্যায় – মহা বিশ্ব ও আমাদের পৃথিবী  থেকে নির্ধারিত কাজ দেওয়া হয়েছে।
নির্ধারিত কাজ


পৃথিবী ও মঙ্গল গ্রহের বৈশিষ্ট্যের তুলনামূলক বিশ্লেষণ –  প্রতিবেদন

সূচনাঃ সৌরজগৎ হল সূর্য ও প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে সূর্য-প্রদক্ষিণকারী তথা পরস্পরের প্রতি অভিকর্ষজ টানে আবদ্ধ মহাজাগতিক বস্তুগুলিকে নিয়ে গড়ে একটি ব্যবস্থা। সৌর জগতের প্রধান উপাদান হচ্ছে সূর্য। সৌর জগতের সমগ্র মোট ভরের শতকরা ৯৯.৮৬ ভাগের জন্য দায়ী হল সূর্য এবং এটিই জগতের সবকিছুকে নিয়ন্ত্রণ করে থাকে।

পৃথিবী ও মঙ্গল গ্রহের বৈশিষ্ট্যঃ  পৃথিবী মানবজাতির আবাসস্থল। এই পৃথিবীকে কেন্দ্র করে ঘিরে রয়েছে অসীম আকাশ। পৃথিবী হল সূর্যের তৃতীয় নিকটতম গ্রহ। সূর্য থেকে পৃথিবীর গড় দূরত্ব ১৫ কোটি কিলোমিটার। পৃথিবী একবার সূর্যকে প্রদক্ষিণ করতে সময় নেয় ৩৬৫ দিন ৫ ঘন্টা ৪৮ মিনিট ৪৭ সেকেন্ড। তাই এখানে ৩৬৫ দিনে এক বছর। আর মঙ্গলের সময় লাগে ৬৮৭ দিন। পৃথিবী একমাত্র গ্রহ যার বায়ুমণ্ডলে প্রয়োজনীয় অক্সিজেন, নাইট্রোজেন ও তাপমাত্রা রয়েছে। যার কারণে পৃথিবী উদ্ভিদ ও জীবজন্তুর বসবাসের উপযোগী। অপরদিকে মঙ্গল গ্রহ পৃথিবীর নিকটতম প্রতিবেশী। মঙ্গলগ্রহে অক্সিজেন ও পানির পরিমান কম এবং কার্বডাইঅক্সাইডের পরিমান অনেক বেশি থাকার কারণে এখানে প্রাণীর অস্তিত্ব সম্ভব নয়।পৃথিবীর একটি মাত্র প্রাকৃতিক উপগ্রহ আছে যার নাম চাঁদ। মঙ্গলের দুটি ছোট ছোট উপগ্রহ আছে যাদের নাম ডিমোস এবং ফোবোস।
 
উপসংহারঃ সূর্য এবং তার গ্রহ, উপগ্রহ অসংখ্য ধুমকেতু ও অগণিত উল্কা নিয়ে সৌরজগত গঠিত। সূর্য সৌরজগতের কেন্দ্রে অবস্থান করছে। সৌর জগতের যাবতীয় গ্রহ-উপগ্রহের নিয়ন্ত্রক হল সূর্য। সূর্যকে ভিত্তি করে সৌরজগতের যাবতীয় কাজকর্ম চলে। এই মহাবিশ্বের বিশালতার মধ্যে সৌরজগৎ নিতান্তই ছোট।

Leave a Comment

Your email address will not be published.

Scroll to Top